ডোমেইন নাম ক্রয় করার আগে অবশ্য পালনীয় কিছু বিষয় |

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য একটি ডোমেইন ক্রয় করতে চান; তাহলে ওই ডোমেইন ক্রয় করার ক্ষেত্রে আপনাকে অনেকগুলো বিষয়ের প্রতি নজর করতে হয়।

অর্থাৎ একটি ভালো এবং ইউনিক ডোমেইন আপনার ওয়েবসাইটকে রেংকিং করাতে অনেক বেশি সহায়তা করে; এছাড়াও ওয়েবসাইটের ব্যান্ড সিগন্যাল এর ক্ষেত্রে একটি ডোমেইন খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

অনেকেই যখন একটি ডোমেইন ক্রয় করেন তখন ডোমেইন ক্রয় করার ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়া দরকার; সেগুলোর প্রতি তেমন একটা নজর দেন না।

এতে করে প্রথমত যখন আপনার কোনো ধারণা নেই ডোমেইন সম্পর্কে তখন তারা এর অভাব তেমন একটা বুঝতে পারেন না। যখন তারা এটা রিয়েলাইজ করে যে ডোমেইন ক্রয় করতে তাদের ভুল হয়েছে; তখন আর কিছুই করার থাকেনা।

আর এজন্য আপনি যদি ইন্টারনেটের জগতে নতুন হয়ে থাকেন এবং একটি ডোমেইন ক্রয় করার চিন্তাভাবনা করে থাকেন; তাহলে যে বিষয়গুলো সম্পর্কে আপনাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হবে সেগুলো এই পোস্টের মাধ্যমে জেনে নিন।

ডোমেইন আসলে কি?

একদম সহজ ভাষায় বলতে গেলে ডোমেইন এর মানে হল একটি সত্তা। অর্থাৎ আপনি যখন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন ওই ওয়েবসাইটের প্রধান অ্যাড্রেস হবে আপনার ডোমেইন।

যেমন আপনি যখনই গুগোল এ ভিজিট করেন তখন নিশ্চয়ই গুগলের যে ডোমেইন রয়েছে সেই ডোমেইন নেইম সার্চ করার মাধ্যমে তাদের ওয়েবসাইটে ভিজিট করেন।

অথবা আপনি যখনই গুগোল লিখে সার্চ করেন; তখনই তাদের যে প্রথম সার্চ রেজাল্ট Google.com হয়েছে তাতে ক্লিক করার মাধ্যমে করেন; আর google.com হলো একটি ডোমেইন নেম।

ঠিক একই রকমভাবে আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেন তাহলে এই ওয়েবসাইটের প্রধান সত্তা হিসেবে যে বিষয়টি কে চিহ্নিত করা হয় সেটি হলো আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইন অ্যাড্রেস।

তাহলে আর দেরি না করে এখনি দেখে নিন ডোমেইন ক্রয় করার পূর্বে আপনাকে যে বিষয়গুলো সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিতে হয় সেই বিষয়গুলো সম্পর্কে সর্বাধিক তথ্য।

ভালো এবং ইউনিক ডোমেইন নেইম

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা ডোমেইন নাম নির্বাচন করার ক্ষেত্রে যে কোনো রকমের হ-য-ব-র-ল টাইপের একটি ডোমেইন নিয়ে সিলেক্ট করে ক্রয় করে ফেলে।

এরকম টাইপের ডোমেইন ক্রয় করার ক্ষেত্রে যেরকম ইফেক্ট আপনার উপরে পড়বে; সেটা আপনি পরবর্তী সময়ে রিয়েলাইজ করতে পারেন।

তবে আপনি যদি একটি আদর্শ টাইপের ডোমেইন ক্রয় করতে চান; তাহলে অবশ্যই ওই ডোমেইন নামের যে অর্থ রয়েছে সেটি সর্বাপেক্ষা বিবেচনা করবেন এবং পরবর্তীতে ডোমেইন ক্রয় করবেন।

এছাড়াও আপনি যে নিস কিংবা টপিক নিয়ে আপনার ওয়েবসাইটে কাজ করবেন; ওই টপিক রিলেটেড একটি ডোমেইন নাম করার সর্বাপেক্ষা চেষ্টা করবেন।

এছাড়াও ডোমেইন নাম ক্রয় করার ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই ডোমেইন এর ওয়ার্ড লিস্ট রয়েছে সেটিকে নামিয়ে আনতে হবে।

অর্থাৎ কম শব্দের মধ্যে একটি ডোমেইন নাম ক্রয় করতে হবে; যাতে করে যে কেউ এটি মনে রাখতে পারে এবং ডোমেইন নাম টাইপ করতে সুবিধা হয়।

রেজিস্টার কোম্পানি যাচাই করা

যখনই আপনি একটি ডোমেইন ক্রয় করতে চাইবেন; তখন যাদের কাছ থেকে আপনি ডোমেইন ক্রয় করবেন সেই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নিবেন।

অর্থাৎ ডোমেইন ক্রয় করার পূর্বে আপনার রেজিস্টার কোম্পানি কে আপনি ভালোভাবে চিহ্নিত করে নিবেন এবং তারা কি রকম সাপোর্ট দিয়ে আসছে সে সম্পর্কে ধারণা নিয়ে নিবেন।

প্রধানত আপনি যদি বাংলাদেশের অধিবাসী হয়ে থাকেন তাহলে বাংলাদেশে এরকম অনেক ডুমেইন এবং হোস্টিং প্রোভাইডার কোম্পানি রয়েছে; যারা আপাতদৃষ্টিতে তেমন একটা ভালো সাপোর্ট দেয় না।

আপনি যখনই যে কোন রেজিস্টার এর কাছ থেকে ডোমেইন ক্রয় করবেন ; তখন তাদের পূর্বের কাস্টমারের যে সমস্ত ফিডব্যাক রয়েছে সেগুলো দেখে তারপরে ডোমেইন ক্রয় করবেন।

এছাড়া অনুমান করা করার ক্ষেত্রে আরেকটি বিষয় সবচেয়ে বেশি নজর রাখবেন; আর সেটি হল আপনি যাদের কাছ থেকে ডোমেইন ক্রয় করছেন তারা কি আপনাকে ফুল কন্ট্রোল প্যানেল দিয়েছে কিনা? যদি কেউ না দেয় তাহলে তাদেরকে এভোয়েড করুন।

আপনি যদি ডোমেইন-এর ফুলি কন্ট্রোল প্যানেল না পান; তাহলে আপনি কোন মতেই আপনার ডোমেইন অন্য রেজিস্ট্রারের ট্রান্সফার করতে পারবেন না।

টপ লেভেল ডোমেইন নির্বাচন করা

যদি একটি ডোমেইন ক্রয় করতে চান তাহলে অবশ্যই ডোমেইন ক্রয় করার পূর্বে টপ লেভেল ডোমেইন দেখে আপনার পছন্দের ডোমেইন ক্রয় করে নিবেন।

কারন একটি টপ-লেভেল ডোমেইন আপনার ওয়েবসাইটে রেংকিং এর ক্ষেত্রে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন; করে যা অন্যান্য Domain করতে ব্যর্থ।

এছাড়াও আপনি যদি গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল নিতে চান তাহলে টপ লেভেল ডোমেইন গুলো গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল নিতে আপনাকে খুব বেশি পরিমাণে সহায়তা করবে।

আর টপ লেভেল ডোমেইন মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি ডোমেইন নাম হচ্ছে
.com, .co, .in , .net ইত্যাদি; ডোমেইন ক্রয় করার ক্ষেত্রে এ সমস্ত এক্সটেনশন দেখে ক্রয় করুন।

ট্রেডমার্ক ডোমেইন সাথে যেন না মিলে

যখনই কোন একটি ডোমেইন নাম ক্রয় করবেন তখন এই বিষয়টিকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দিবেন; অর্থাৎ লক্ষ্য করবেন আপনার নির্বাচন কৃত Domain কোন trademark লাইসেন্সকৃত ডোমেইন এর সাথে না মিলে।

কারণ ইন্টারনেটের জগতে এরকম অনেক ব্র্যান্ড কিংবা কোম্পানি রয়েছে যারা তাদের ডোমেইন নামটি কে রেজিস্টার করে রেখেছে।

অর্থাৎ কেউ যদি ওই একই ডোমেইন নামের সাথে অন্য কিছু লাগিয়ে ডোমেইন ক্রয় করে তাহলে তাদের সাধ্য রয়েছে; ওই ডোমেইন তাদের নিজের নামে রেজিস্টার করে নেয়া।

এবং আপনি যদি ওই ডোমেন নামটিকে তাদের নামে রেজিস্টার করে না দেন; তাহলে তারা আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করার মত অবিস্মরনীয় ক্ষমতা রাখে।

ঐ সমস্ত ট্রেডমার্ক লাইসেন্সকৃত ডোমেইনগুলো মধ্যে থেকে কয়েকটি উদাহরণ হল: facebookbd, googlebd
googleinfo, applebd ইত্যাদি।

সব সময় চেষ্টা করবেন এই সমস্ত লাইসেন্স করার ডোমেইনগুলো ক্রয় না করার; কারণ পরবর্তী সময়ে তাদের নজরে পড়লে, এর ক্ষতি কাটিয়ে উঠার সাধ্য বা মনোবল হয়তো আপনার থাকবে না।

লগইন করে দেখুন ইনফরমেশনটা আছে কিনা

যখনই আপনি যখন একটি প্রোভাইডার এর কাছ থেকে ডোমেইন ক্রয় করে নিবেন তখন আপনি দেখে নিবেন সে আপনার ইমেইল এড্রেস কিংবা আপনার এড্রেস অনুযায়ী ডোমেইন ক্রয় করা সম্পন্ন হয়েছে কিনা।

কারণ এরকম অনেক ভুয়া রেজিস্টার কৃত কোম্পানি রয়েছে যারা অন্যের নামে আপনার ডোমেইন রেজিস্টার করে দিতে পারে এবং পরবর্তীতে আপনাকে বিভ্রান্তিতে ফেলতে পারে।

ক্রয় করার আগে এক নজরে সমস্ত বিষয় গুলো

  1. রেজিস্টার ফী।
  2. প্রতিষ্ঠান বর্তমান অবস্থা।
  3. টপ লেভেল ডোমেইন।
  4. ফুলি কন্ট্রোল প্যানেল।
  5. ট্রান্সফার করার সুবিধা।
  6. ট্রেডমার্ক লাইসেন্স কৃত ডোমেইন ক্রয় না করা।
  7. কম শব্দের মধ্যে ডোমেইন ক্রয় করা; ইত্যাদি।

একটি ভালো ইউনিক ডোমেইন ক্রয় করার ক্ষেত্রে শুধুমাত্র উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো মাথায় রাখলেই হবে। আপনাকে আর অন্য কিছু চিন্তা ভাবনা করতে হবে না।

error: Content is protected !!
Scroll to Top